নারীর সক্ষমতাকে জাতীয় উন্নয়নে কাজে লাগাতে হবে

আকাশছোঁয়া ডেস্ক :স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, নারীরা কঠিন সময়ে হাল ছেড়ে দেয় না, নারীদের এই সক্ষমতাকে জাতীয় উন্নয়নে কাজে লাগাতে হবে। 

তিনি বলেন, এর মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত সমৃদ্ধশালী স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পথ সম্প্রসারিত হবে। মুজিব শতবর্ষ, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বিজয়ের মাসে লাল সবুজের মহোৎসব, এই আয়োজন এক্ষেত্রে সকলকে অনুপ্রাণিত করবে।

এফবিসিসিআই-এর উদ্যোগে ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সার্বিক সহযোগিতায় ১৬দিনব্যাপী ‘বিজয়ের ৫০বছর- লাল সবুজের মহোৎসব’ শীর্ষক অনুষ্ঠানের তৃতীয় দিনে রাজধানীর হাতিরঝিল এমফিথিয়েটারে প্রধান হিসেবে উপস্থিত হয়ে স্পিকার এসব কথা বলেন। 
এমন একটি আয়োজনের সফল বাস্তবায়নে সহযোগিতার জন্য  প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এমপিকে ধন্যবাদ জানান স্পিকার।

স্পিকার বলেন, বাহান্নর ভাষা আন্দোলন থেকে মুক্তিযুদ্ধ সকল সময়েই আন্দোলন-সংগ্রাম-দুঃসময়ে নারী সমাজের  ভূমিকা ছিল অপরিসীম। বাংলার স্বাধীনতার ইতিহাসের সাথে নারীর অবদান ওতপ্রোতভাবে জড়িত। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে সম্মুখ সমরে অস্ত্রহাতে যুদ্ধ করেছে বাংলার নারী।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন,  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ নারীর ক্ষমতায়নের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। নারীদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সকল ক্ষেত্রে সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে বহুমুখী কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে সরকার।অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণের বেলায় নারীদের মতামতের মূল্যায়নে সরকার বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে। দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে নারীরা আজ উল্লেখযোগ্য অবদান রাখতে পারছে।

এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক এমপি বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দীন এমপি সম্মানিত অতিথি হিসেবে এবং ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম স্বাগত বক্তব্য রাখেন। 
অনুষ্ঠানে বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও গণমাধ্যমকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

শেয়ার করুন :