এখন থেকে প্রতি বছর মহামারি করোনাভাইরাসের টিকা নেওয়ার প্রয়োজন হতে পারে

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি ফাইজারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আলবার্ট বোরলা জানিয়েছেন, এখন থেকে প্রতি বছর মহামারি করোনাভাইরাসের টিকা নেওয়ার প্রয়োজন হতে পারে ।

সম্প্রতি সিএনবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি একথা জানান বলে বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

১৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার প্রকাশিত ওই সাক্ষাৎকারে বোরলা বলেন, পুরোপুরি টিকার আওতায় আসতে ফাইজারের তৃতীয় ডোজ গ্রহণ করতে হবে। এটি এক বছরের মধ্যে সম্পন্ন করতে হবে। এছাড়া এখন থেকে প্রতি বছর করোনার টিকা নিতে হতে পারে।

চলতি মাসের শুরুর দিকে টিকার সুরক্ষা নিয়ে গবেষণার বরাত দিয়ে ফাইজার জানায়, তাদের টিকার কার্যকারিতা ৯১ শতাংশের বেশি। কোনো কোনো ক্ষেত্রে এটি ৯৫ শতাংশের ওপরও সুরক্ষা দিতে পারে। দুই ডোজ টিকা গ্রহণের পর যে কেউ ছয় মাসের বেশি সুরক্ষিত থাকতে পারবেন।

তিনি বলেন, পরিস্থিতি কী ঘটে তা দেখতে হবে, কতদিন পর্যন্ত এমনটি প্রয়োজন হতে পারে সেটিও দেখার আছে।

ফাইজারের সিইও বলেন, কোথাও সম্ভবত একটি পরিস্থিতি তৈরি হলো সেখানে তৃতীয় ডোজ প্রয়োজন হলো, কোথাও ছয় থেকে ১২ মাসের মধ্যে এটি হতে পারে। এরপর আবার সেখান থেকে টিকা দেওয়া শুরু হলো। প্রতি বছর টিকা কার্যক্রম চালানো হতে পারে। তবে এসব ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া দরকার।

করোনা প্রতিরোধে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চলছে টিকাদান কার্যক্রম। প্রথম ডোজ শেষ হয়ে কোথাও কোথাও চলছে দ্বিতীয় ডোজ প্রয়োগ। দুই ডোজ নেওয়ার পরও টিকাগ্রহণকারী কতদিন সুরক্ষিত থাকবেন তা নিয়ে অবশ্য এখনো কোনো সুনির্দিষ্ট তথ্য দিতে পারেননি গবেষকরা।

শেয়ার করুন :