ধর্ষণের বিরুদ্ধে লংমার্চে পুলিশ-যুবলীগ-ছাত্রলীগের হামলার তীব্র নিন্দা এবং জড়িতদের শাস্তি দাবি

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : নারী নিপীড়ন-ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে লংমার্চে পুলিশ-যুবলীগ-ছাত্রলীগের হামলার তীব্র নিন্দা এবং জড়িতদের শাস্তি দাবি করে বিবৃতি দিয়েছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ও নারীমুক্তি কেন্দ্র।

এক বিবৃতিতে সংগঠনদ্বয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়- ১৭ অক্টোবর  শনিবার ‘ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ’-এর উদ্যোগে ফেনীতে লংমার্চ চলাকালে হামলা চালিয়েছে সেখানকার পুলিশ ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠন যুবলীগ-ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা। লংমার্চের গাড়ি বহরে ইট-পাথর ছুড়ে, লাঠি দিয়ে আঘাত করে তারা জানালার কাঁচ ভেঙে হামলা করতে থাকে। এসময় বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্র, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টসহ বিভিন্ন সংগঠনের প্রায় অর্ধ-শতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে অনিক, জাওয়াদ ও মাহমুদার অবস্থা গুরুতর। তারা চিকিৎসাধীন আছেন।

বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্রের সভাপতি সীমা দত্ত ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি মাসুদ রানা এক যুক্ত বিবৃতিতে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন এবং হামলার সাথে জড়িতদের অবিলম্বে শাস্তির আওতায় আনার আহ্বান জানিয়েছেন।

বিবৃতি তাঁরা বলেন, “বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার কতটা অগণতান্ত্রিক ও স্বৈরাচারীভাবে দেশ চালাচ্ছে, তারই প্রতিফলন ঘটেছে এই ধরনের হামলায়। ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে চলমান আন্দোলনকে দমন করতে এই ধরনের পথ বেছে নিয়েছে সরকার। যেখানে সরকারের দায়িত্ব ছিল অব্যাহত ধর্ষণ-নিপীড়নের বিচার করা এবং অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া; সেখানে সরকার তা না করে আন্দোলনকে দমন করতে এই ধরনের হামলা চালাচ্ছে।

জনগণের ভোটের অধিকারকে কেড়ে নিয়ে ভোট-ডাকাতির মাধ্যমে গায়ের জোরে ক্ষমতায় টিকে থাকা আওয়ামী লীগের প্রতি জনমানুষের কোনো নৈতিক সমর্থন নেই। একের পর এক ধর্ষণ, নারী নিপীড়নের ঘটনার সাথে তাদেরই লোকজন যুক্ত। ফলে এই আন্দোলনকে তারা ভয় পাচ্ছে। সারাদেশে খুন, লুটপাট, দুর্নীতি, মাদকের ব্যবসা, ধর্ষণ-নির্যাতন ইত্যাদি এমন কোনো অপকর্ম নেই যা বর্তমান সরকার করছে না। আজকের লংমার্চে পুলিশ ও দলীয় সন্ত্রাসীদের দিয়ে হামলা তাই কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। অবিলম্বে হামলার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। সেই সাথে অব্যাহত নারী ধর্ষণ-নিপীড়নের বিচারসহ আমাদের আন্দোলনের ৯ দফা দাবি অবিলম্বে মেনে নিতে সরকারের কাছে দাবি জানাচ্ছি।”

 

শেয়ার করুন :