পবিত্র ঈদুল আজহার পূর্ব প্রস্তুতি

নিউজ ডেস্ক: বছর ঘুরে আবারও চলে এসেছে পবিত্র ঈদুল আজহা। পবিত্র এই দিনটি কেটে যায় নানান রকম ব্যস্ততায়। অতিথি আপ্যায়ন করা থেকে শুরু করে নানান রকম রান্না করা, কোরবানির মাংস কাটাকাটি, এরপর ভাগ বাটোয়ারা করার কাজ যথেষ্ট সময়ের ব্যাপার।

তাই কিছু কাজ এখন থেকে গুছিয়ে রাখলে ঈদের দিন বাড়তি ঝামেলা থেকে রেহাই পাওয়া সম্ভব। আসুন জেনে নেই কি কি প্রস্তুতি আপনি এখন থেকেই নেয়া শুরু করবেন-

# রান্না করার একটি বড় উপাদান হল মশলা বাটা। এই কাজ বেশ ঝামেলারও বটে। তাই ঈদের আগেই রান্নায় যে মসলাগুলো ব্যবহার করবেন তা পাটায় বেটে কিংবা ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে ফ্রিজে রেখে দিন। এতে করে ঈদের দিন রান্না করার সময় আপনার অর্ধেক কাজের ঝামেলা কমে যাবে।

# এখন থেকেই ফ্রিজ পরিষ্কার করে গুছিয়ে রাখুন। প্রয়োজনীয় জিনিস ছাড়া অপ্রয়োজনীয় জিনিস সরিয়ে ফেলুন।

# রান্না ঘর আগে থেকেই পরিস্কার করে গুছিয়ে রাখুন। রান্নার প্রয়োজনীয় সামগ্রী গুছিয়ে একসাথে রাখুন। যেন ঈদের দিন ব্যস্ততায় রান্নার সময় জিনিস পত্র খুঁজতে সময় না ব্যয় হয়।

# ঈদের বাজারের জন্য এখন থেকেই প্রয়োজনীয় জিনিস সামগ্রীর একটা লিস্ট করে ফেলুন। লিষ্ট অনুযায়ী বাজার করে আগে থেকে গুছিয়ে রাখুন।

# বাড়িতে অতিথি এলে তাদের যেসব থালা বাসনে খাবার পরিবেশন করবেন তা আগে থেকেই পরিষ্কার করে রাখুন।

# বাসার আনাচে কানাচের ধুলোবালি ঝেড়ে পরিষ্কার করে নিন। এছাড়া ঘরের জিনিসপত্র যেমন খাবার টেবিল, আসবাপত্র, চাদর, পর্দা, সোফার কাভার সব কিছু এখনই পরিষ্কার করে ফেলুন।

# ঈদ উপলক্ষে ঘর সুন্দর করে সাজিয়ে গুছিয়ে রাখুন। ঘরে পর্যাপ্ত পরিমাণ আলো বাতাস প্রবেশ করতে পারে সে বিষয়ে খেয়াল রাখুন।

# বিভিন্নরকম কাজের পাশাপাশি নিজের দিকেও একটু খেয়াল রাখুন। ঘরে বসেই নিতে পারেন ত্বকের যত্ন। এছাড়া প্রচণ্ড এই গরমে কাজের পাশাপাশি পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করুন। নাহলে ঈদের আগে ডিহাইড্রেশন হয়ে আপনি অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন।

কোরবানির ঈদে পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে বিশেষ নজর রাখা প্রয়োজন। এসময় পশুর রক্ত ও বর্জ্য জমে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়ে থাকে সাধারণত। তাই এসব বর্জ্য পরিষ্কারের ব্যবস্থা আগে থেকেই ঠিক করে রাখুন।

শেয়ার করুন :