করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সুপ্রিম কোর্টের ১২ বিচারক

নিউজ ডেস্ক: দেশের সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের ১২ জন বিচারকের করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। সোমবার (২৭ জুন) প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী আদালত চলাকালে এ তথ্য জানান।

জুন মাসের শুরু থেকেই দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আবার বাড়ছে। গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১ হাজার ৬৮০ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ সময় দুজনের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে।

সংক্রমণের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত দেশে ১৯ লাখ ৬৫ হাজার ১৭৩ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। মোট সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৬ হাজার ৬৮৮। মৃত্যু হয়েছে ২৯ হাজার ১৪০ জনের।

সোমবার প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বলেন, “বর্তমানে আমাদের ১২ জন বিচারক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। কোর্ট পরিচালনা কষ্টকর হয়ে যাচ্ছে।”

গতকাল বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১০ হাজার ৭২৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার ১৫.৬৬%। আগের দিন এ হার ছিল ১৫.০৭%।

প্রধান বিচারপতি বলেন, “পরিস্থিতি খারাপ হলে মনে হয় আবার ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনা করতে হবে।” এ ক্ষেত্রে আইনজীবীদের সহযোগিতার আহ্বান জানান তিনি। তখন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, “আদালত পরিচালনায় সব ধরনের সহযোগিতা থাকবে।”

সরকারের করোনাসংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি সব ক্ষেত্রে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা, “নো মাস্ক, নো সার্ভিস” নীতি প্রয়োগসহ ছয় দফা ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও জনসমাগম বর্জন করার পরামর্শও দিয়েছে। এছাড়াও মসজিদ, মন্দির, গির্জার মতো ধর্মীয় প্রার্থনার স্থানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বলা হয়।

শেয়ার করুন :