পিলখানা হত্যাকান্ডে শহীদ সেনা কর্মকর্তাদের ১৩তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত

পিলখানা হত্যাকান্ডে শহীদ সেনা কর্মকর্তাদের ১৩তম শাহাদত বার্ষিকী যথাযথ মর্যাদায় পালিত

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : গত ২৫-২৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ তারিখে বিডিআর (বর্তমানে বিজিবি) সদর দপ্তর, পিলখানায় সংঘটিত বর্বরোচিত হত্যাকান্ডে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শহীদ সেনা কর্মকর্তাদের ১৩তম শাহাদত বার্ষিকী আজ শুক্রবার ২৫ ফেব্রুয়ারি যথাযথ মর্যাদায় পালিত হয়। খবর আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর)

এ উপলক্ষে বনানীস্থ সামরিক কবরস্থানে শহীদদের কবরে পুস্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শাহাদত বরণকারী সেনা কর্মকর্তাদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মহামান্য রাষ্ট্রপতির পক্ষে রাষ্ট্রপতির সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহ উদ্দিন ইসলাম, বিপি, এসপিপি, এনডিসি, পিএসসি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল নকিব আহমদ চৌধুরী, বিএসপি(বার), এনডিসি, পিএসসি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, এসবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি, পিএইচডি, নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল এম শাহীন ইকবাল, এনবিপি, এনইউপি, এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল শেখ আব্দুল হান্নান, বিবিপি, বিইউপি, এনএসডব্লিউসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব জনাব মোঃ আখতার হোসেন, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোঃ সাফিনুল ইসলাম, ওএসপি, বিজিবিএম(বার), এনডিসি, পিএসসি এবং শহীদ পরিবারের সদস্যগণ।

পুস্পস্তবক অর্পণ শেষে শহীদদের প্রতি সম্মান প্রদর্শনে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয় এবং ঐ সময় কর্মরত সামরিক সদস্যগণ স্যালুট প্রদান করেন। পরে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

এছাড়াও এদিন সকল সেনানিবাসের কেন্দ্রীয় মসজিদে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে সকল স্তরের সেনা সদস্যগণের উপস্থিতিতে মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

 

শেয়ার করুন :