বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মায়ানমার নাগরিকদের বিমান বাহিনী কর্তৃক ভাসানচরে স্থানান্তরে সহায়তা

বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মায়ানমার নাগরিকদের বিমান বাহিনী ঘাঁটি

জহুরুল হক কর্তৃক ভাসানচরে স্থানান্তরে সহায়তা

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার স্বেচ্ছায় গমনেচ্ছুক ঋউগঘ FDMN (FORCIBLY DISPLACED MYANMAR NATIONALS)-দেরকে কক্সবাজার জেলার কুতুপালং থেকে নোয়াখালী জেলার অন্তর্গত ভাসানচরে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। খবর আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর)

ইতোমধ্যে, গত ০৩ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখ হতে সর্বমোট ১০টি ধাপে ১৯,৩৮৫ জন ঋউগঘ-দের ভাসানচরে স্থানান্তরের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। নৌবাহিনীর নিকট হস্তান্তরের পূর্বে চট্টগ্রামস্থ বা বি বা ঘাঁটি জহুরুল হক এ তাদের রাত্রিযাপনের ব্যবস্থা করা হয়। বা বি বা জহুরুল হক ঘাঁটিতে একটি অস্থায়ী ক্যাম্প তৈরি করতঃ তাদেরকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা, প্রয়োজনীয় প্রাথমিক চিকিৎসা ও অন্যান্য প্রশাসনিক সুবিধাদি প্রদান করা হয়।

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২ তারিখে আরও প্রায় ১৭০০ জন ঋউগঘ ভাসানচরে স্থানান্তরের নিমিত্তে বিমান বাহিনী ঘাঁটি জহুরুল হক এ রাত্রিযাপন করে।  ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২ তারিখে তারা ভাসানচরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে।

 

শেয়ার করুন :