জিয়াউর রহমান যুবশক্তির হাতে অস্ত্র ও মাদক তুলে দিয়েছিল

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেছেন, জিয়াউর রহমান এদেশের তরুণ সমাজকে বিপথগামী করেছিল এবং পাকিস্তানের এজেন্ট হিসাবে এদেশকে ধ্বংস করার উদ্দেশ্যে তরুণ সমাজের হাতে অস্ত্র তুলে দিয়েছিল।

১৭ ফেব্রুয়ারি বুধবার শহীদ বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়াম (কমলাপুর স্টেডিয়াম) মাঠে আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে শেখ মণি ক্রীড়াচক্র ফুটবল একাডেমি অনুর্ধ্ব-১৮ টুর্ণামেন্টের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। খবর বাসসের

শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অস্ত্রের ঝঙ্কার নিত্ত-নৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছিল। অপর দিকে বঙ্গবন্ধুকন্যা বিনামূল্যে পুস্তক দিচ্ছেন ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে। আমাদের সজাগ থাকতে হবে যুবকদের যাতে স্বাধীনতা বিরোধীচক্র বিভ্রান্ত করতে না পারে।

তিনি বলেন, আমি যুব সমাজকে আহ্বান জানাব, যে তারা ক্রীড়া, সংস্কৃতি প্রভৃতি গঠনমূলক এবং সৃজনশীল কাজে মনোনিবেশ করে এদেশের মর্যাদা বৃদ্ধিতে আত্মনিয়োগ করবে। দেশের শত্রুরা পরিকল্পিতভাবে এদেশের তরুণ সমাজকে মাদকাসক্তির দিকে ঠেলে দিচ্ছে আমাদের এই ব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে।

যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তিনি তরুণ সমাজকে বিপথ থেকে রক্ষা করে ক্রীড়া জগত, সংস্কৃতির সাথে বিশেষ করে আওয়ামী যুবলীগের পতাকাতলে সম্পৃক্ত করে একটি সুষ্ঠু, বিনোদনমুখী যুবসমাজ গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

যুবলীগের প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী’র সঞ্চালনায় পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন-যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন, মোঃ জসিম মাতুব্বর ও মোঃ আনোয়ার হোসেন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বিশ্বাস মুতিউর রহমান বাদশা ও সুব্রত পাল, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু মুনির মোঃ শহিদুল হক চৌধুরী রাসেল, মশিউর রহমান চপল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইন উদ্দিন রানা প্রমুখ।

 

শেয়ার করুন :