জেনারেল ওসমানীর বীরত্ব গাথা জাতি চিরকাল মনে রাখবে

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতা, জাগপা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার লুৎফর রহমান বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে জেনারেল ওসমানীর বীরত্ব গাথা জাতি চিরকাল মনে রাখবে। একই সাথে একদলীয় বাকশালের বিরুদ্ধে সংসদ থেকে পদত্যাগের মাধ্যমে গণতন্ত্রের জন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

বুধবার ১৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সেনাপতি জেনারেল এম এ জি ওসমানির ৩৮তম মৃতু্যবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপা আয়োজিত স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতীর এই মহান সূর্য সন্তান জাতিকে মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়েছেন, একইভাবে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায়ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। দেশপ্রেমিক বীর জেনারেল আতাউল গনি ওসমানী ছিলেন সত্যাদর্শে এক বিরাট মহীরূহ, একটি মহান আদর্শ। দেশপ্রেমে, স্বার্থত্যাগে, নিপীড়িত মানুষের অধিকার অর্জনের কঠোর সংগ্রাম হিমালয় সদৃশ এক জ্বলন্ত উদাহরণ।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে ওসমানীই একমাত্র ব্যক্তি যিনি সেনাবাহিনী, বাকশালী শক্তিকে নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখার ক্ষমতা রাখতেন। ওসমানীর সততা যার অভাব বাংলাদেশের রাজনীতিতে বিশেষভাবে অনুভূত। এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেশী যেটার প্রয়োজন, তা হলো সৎ নেতৃত্ব। ওসমানীর সাহস, সততা, স্বদেশ প্রেম, ন্যায়পরায়ণতা ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ পরীক্ষিত ও প্রশ্নাতীত। এ সত্য বাংলাদেশের সব দলই জানে এবং মনে মনে মানে।

জাগপা সভাপতি খন্দকার লুৎফর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ জামাল উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক ডা. আওলাদ হোসেন শিল্পী, যুব জাগপা সাধারন সম্পাদক ইব্রাহিম করিম রাজা, সাংগঠনিক সম্পাদক মঞ্জুর হোসেন, যুব নেতা মো. দুলাল আকন্দ, মো. দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।

 

শেয়ার করুন :