অনিকেত ভালোবাসা

শামসুজ্জোহা লোটাস-

 

প্রেম নাকি ভালোবাসা!
তুমি কি? আমি আজও বুঝিনি!

তুমি কি চাওয়া? নাকি পাওয়া!
নাকি অনিকেত প্রান্তর,
শুধুই হেঁটে চলা?

হেঁটে চলেছি অন্তহীন;
দেখেছি ঘাস ফুলের সাথে মিশে গেছে ঘাস ফড়িং।
দেখেছি মাটির টানে নেমে গেছে
পাহাড় টপকে আকাশের নীল।

আবার দিগন্ত পাড়ি দেবার নেশায়,
কত পথিক মৃত্যুকে নিয়েছে কিনে অসহায়!
তবু কত নগরী উঠেছে গড়ে,
রুক্ষ মরুর বুকে!
শুধু মরিচিকা আজো ঘুরে বেড়াই
ইট পাথরের ফাঁকে।

আমি শুনেছি গভীর নিশুতি আঁধারে
হুতুম পেঁচার পাজর ভাঙ্গা আর্তচিৎকার।
চিৎকারে প্রকম্পিত নির্জন নির্জনতা,
তবু কোনো উত্তর আসেনি তার!

চিৎকার আমি আজো শুনি রাত্রি আঁধার হলে,
বাচ্চা কোলে কুকুরের মতো নরনারী ঘুমিয়ে থাকে
আকাশ ছাদের ফুটপথের ঘরে।

তবু কত দিবস কত কিছু ভালোবাসার নামে,
কত মধু ভেসে যায় অকাল বাণের জলে।

প্রেম নাকি ভালোবাসা!
তুমি কি? আমি আজও বুঝিনি!

তুমি কি চাওয়া? নাকি পাওয়া!
নাকি অনিকেত প্রান্তর,
শুধুই হেঁটে চলা?

হেঁটে চলেছি অন্তহীন;
দেখেছি ঘাস ফুলের সাথে মিশে গেছে ঘাস ফড়িং।
দেখেছি মাটির টানে নেমে গেছে
পাহাড় টপকে আকাশের নীল।

আবার দিগন্ত পাড়ি দেবার নেশায়,
কত পথিক মৃত্যুকে নিয়েছে কিনে অসহায়!
তবু কত নগরী উঠেছে গড়ে,
রুক্ষ মরুর বুকে!
শুধু মরিচিকা আজো ঘুরে বেড়াই
ইট পাথরের ফাঁকে।

আমি শুনেছি গভীর নিশুতি আঁধারে
হুতুম পেঁচার পাজর ভাঙ্গা আর্তচিৎকার।
চিৎকারে প্রকম্পিত নির্জন নির্জনতা,
তবু কোনো উত্তর আসেনি তার!

চিৎকার আমি আজো শুনি রাত্রি আঁধার হলে,
বাচ্চা কোলে কুকুরের মতো নরনারী ঘুমিয়ে থাকে
আকাশ ছাদের ফুটপথের ঘরে।

তবু কত দিবস কত কিছু ভালোবাসার নামে,
কত মধু ভেসে যায় অকাল বাণের জলে।

শেয়ার করুন :