অমর একুশে বই মেলায় নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : ঢাকা মেট্রোপলিটন (ডিএিমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেছেন, অমর একুশে বই মেলায় নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে।

তিনি বলেন, মেলা কেন্দ্রিক নিরাপত্তার পাশাপাশি শহীদ মিনার ও শাহবাগ-নীলক্ষেত কেন্দ্রিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে ।

অমর একুশে বই মেলা ২০২২ উপলক্ষে ডিএমপি কমিশনার আজ রোববার সকাল ১১ টার দিকে মেলাস্থানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্থাপিত অস্থায়ী পুলিশ কন্ট্রোল রুমের সামনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন।
১৫ ফেব্রুয়ারি অমর একুশে বইমেলা শুরু হচ্ছে। খবর বাসসের

কমিশনার বলেন, বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের আশে-পাশে তল্লাশী দল থাকবে, সন্দেহভাজন কিছু দেখলে তারা তল্লাশী করবেন। মূল মেলা প্রাঙ্গনে প্রবেশের আগে প্রতিটি প্রবেশপথে আর্চওয়ে, মেটাল ডিটেক্টর থাকবে। এছাড়া, কাউকে সন্দেহ হলে তাকে পৃথক কক্ষে নিয়ে তল্লাশী করা হবে। মেলা প্রাঙ্গনসহ আশে-পাশের এলাকার প্রতিটি ইঞ্চি সিসিটিভির আওতায় আনা হয়েছে। মেলা প্রাঙ্গনে সাদা পোশাকে পুলিশ সদস্যের পাশাপাশি পর্যাপ্ত সংখ্যক পোশাকধারী সদস্য মোতায়েন থাকবে। মেলার আশে-পাশে মোটরসাইকেল ও গাড়ি টহল থাকবে।

এছাড়া, সিটিটিসি, বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট, ক্রাইম সিন ভ্যান, সিটি এসবি ও ডগ স্কোয়াড সদস্যরা দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে।
তিনি আরও বলেন, ‘মেলায় মেডিক্যাল টিম ও ফায়ার সার্ভিস মোতায়েন থাকবে। ডিএমপি কন্ট্রোল রুমের ভেতরে ব্রেস্ট ফিডিং কক্ষ থাকবে। আমাদের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা নিয়মিত মেলা প্রাঙ্গনে আসবেন ও নিরাপত্তা বিষয় পর্যবেক্ষণ করবেন।

মেলায় সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে, মাস্ক পরিধান করতে হবে। প্রবেশপথে তামপাত্রা মাপার ব্যবস্থা থাকবে, মাস্ক ছাড়া কেউ প্রবেশ করতে পারবে না। স্টলের কর্মীদের টিকা দেওয়ার কার্ড রাখতে হবে, অন্যথায় তাদেরকে মেলায় থাকতে দেওয়া হবে না।

এক প্রশ্নের জবাবে কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, অভিজিৎ হত্যা মামলার রায় ঘোষণা হয়েছে। এতে জঙ্গিদের ক্ষিপ্ত হওয়া স্বাভাবিক। অভিজিৎ রায় হত্যাকান্ডের মূল হোতা জঙ্গি মেজর জিয়া এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে। বইমেলায় কোন ধরনের আশংকা নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, সবকিছু মাথায় রেখেই অমর একুশে বইমেলার নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে’।

শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘মেজর জিয়াকে গ্রেফতারে বিদেশ থেকেও পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে, গত ডিসেম্বরে মেজর জিয়ার সন্ধান পেতে যুক্তরাষ্ট্র ৫০ লাখ ডলার পুরস্কার ঘোষণা করে। আমরাও তাঁকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছি।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে ডিএমডি কমিশনার বলেন, ‘জঙ্গিদের মোকাবিলায় আমাদের প্রস্তুতি নেওয়া থাকবে। আমরা আশা করছি, এ ধরনের কিছু ঘটবে না। কারণ, তাদের তৎপরতা প্রায় জিরো পর্যায়ে।’

সভায় ডিএমপি’র উর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর, বাংলা একাডেমি কর্মকর্তাবৃন্দ, লেখক ও প্রকাশক সংস্থার প্রতিনিধি, সরকারি বিভিন্ন সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন :