বিশ্বের সবচেয়ে মিষ্টি ভাষা বাংলা

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক অধিসংস্থা ইউনেস্কো পরিচালিত ২০১০ সালের এক সমীক্ষা অনুয়ায়ী বাংলা বিশ্বের সবচেয়ে মিষ্টি ও শ্রুতিমধুর ভাষা। এরপরে দ্বিতীয় ও তৃতীয় মিষ্টি ভাষার মর্যাদা পায় যথাক্রমে স্প্যানিশ ও ডাচ ভাষা। এখন পর্যন্ত বাংলা ভাষা তার পূর্বের অবস্থান ধরে রেখেছে।

প্রতিমন্ত্রী ১২ ফেব্রুয়ারি শনিবার রাজধানীর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন (এফডিসি) -এ মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ‘ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’ আয়োজিত ‘একুশের চেতনা বৃথা যায়নি’ শীর্ষক ছায়া সংসদ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। খবর এবং ছবি তথ্য অধিদফতর থেকে সরবরাহকৃত

প্রধান অতিথি বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশে ৪৯টি ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী রয়েছে। বর্ণিল ও বৈচিত্র্যময় সংস্কৃতির অধিকারী এসব নৃগোষ্ঠীর ভাষা ও সংস্কৃতি সংরক্ষণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, একুশের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে অর্জিত হয়েছে স্বাধীনতা। তাই ভাষা শহিদদের স্মৃতিবিজড়িত স্থাপনাগুলো সংরক্ষণে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, কোন অবস্থাতেই সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে বিলুপ্ত হতে দেয়া যাবে না।

ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি এর চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণের সভাপতিত্বে ছায়া সংসদ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় ক্যামব্রিয়ান স্কুল এন্ড কলেজ ঢাকা এবং মজিদ-জরিনা ফাউণ্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজ এতে অংশগ্রহণ করে। চূড়ান্তভাবে বিজয়ী হয় মজিদ-জরিনা ফাউন্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজ। প্রতিমন্ত্রী অংশগ্রহণকারী দলের মাঝে ট্রফি ও সনদপত্র বিতরণ করেন।

শেয়ার করুন :