আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবসে প্রধানমন্ত্রী’র বাণী

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৬ জানুয়ারি বুধবার ‘আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস-২০২২’  উপলক্ষে নিম্নোক্ত বাণী প্রদান করেন। তথ্য অধিদফতরের সৌজন্যে ২৫ জানুয়ারি মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী’র বাণী তুলে ধরা হলো-

“বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের উদ্যোগে ‘আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস ২০২২’ পালন করা হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। এ উপলক্ষে আমি বাংলাদেশ কাস্টমসের কর্মকর্তা-কর্মচারী, সেবাগ্রহীতা ও অংশীজনসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

এ বছরের মূল প্রতিপাদ্য ‘Scaling up Customs Digital Transformation by Embracing a Data Culture and Building a Data Ecosystem’ অত্যন্ত সময়োপযোগী হয়েছে বলে আমি মনে করি।

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার পরপরই জাতীয় রাজস্ব বোর্ড গঠন করে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ও শিল্পায়নের ওপর ব্যাপক গুরু্ত্ব দিয়েছিলেন। এর ফলেই দেশের রাজস্ব আদায়ের বহুমুখীখাত সৃষ্টি হয়েছিলো। জাতির পিতার সুযোগ্য নেতৃত্ব ও সুদূরপ্রসারী কর্মপরিকল্পনার মাধ্যমে মাত্র সাড়ে তিন বছরেই যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশে রুপান্তরিত হয়েছিল। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ২০০৯ সাল থেকে পরপর তিন দফা সরকার গঠন করে সমগ্র দেশে অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষ্যে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণে বিভিন্নমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। WCO Data Model ও Data Standard- কে ভিত্তি ধরে রাজস্ব নীতি প্রণয়ন করছে। ডিজিটাল কাস্টমস সেবা ও উন্নত তথ্যভাণ্ডার নির্মাণের লক্ষ্যে বাংলাদেশ কাস্টমস এর অত্যাধুনিক ডিজিটাল প্লাটফর্ম Asycuda World এর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের সাথে MoU স্বাক্ষর করছে। আমাদের সরকার ব্যবসায়ীদের উন্নত ডিজিটালসেবা ও ওয়ানস্টপ সার্ভিস প্রদানের লক্ষ্যে নানাধরনের উদ্যোগ নিয়েছে।

আমি আশা করি, বাংলাদেশ কাস্টমস তাদের পেশাগত দক্ষতা, ডিজিটাল ব্যবস্থাপনা ও প্রয়োজনীয় সংস্কার বাস্তবায়নের মাধ্যমে রাজস্ব আদায়ে গতিশীলতা বৃদ্ধি, অপবাণিজ্য রোধ, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন প্রতিরোধ এবং সর্বোপরি স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে আরো সফল হবে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা জাতির পিতার স্বপ্নের ‘সোনার বাংলাদেশ’ গড়ে তুলবো, ইনশাল্লাহ।

আমি ‘আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস-২০২২’ এর সার্বিক সাফল্য কামনা করছি।

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু
বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।”

শেয়ার করুন :