খুলনা ও টুঙ্গিপাড়ায় সেনাবাহিনী প্রধান কর্তৃক অসহায় ও দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, এসবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি, পিএইচডি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের যশোর ও খুলনা অঞ্চল পরিদর্শনকালে বুধবার ৫ জানুয়ারি সকাল ১০ টায় খুলনার শেখ আবু নাসের ষ্টেডিয়ামে প্রায় ৬০০০ জন অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন। খবর আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর)

এসময় সেনাবাহিনী প্রধানের সাথে সেনাবাহিনীর এ্যাডজুটেন্ট জেনারেল মেজর জেনারেল শাকিল আহমেদ, এসবিপি, এনএসডব্লিউসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের সিনিয়র ডাইরেক্টিং স্টাফ মেজর জেনারেল এ কে এম আমিনুল হক, এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, জিওসি ৫৫ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার যশোর এরিয়া মেজর জেনারেল মো: নূরুল আনোয়ার, এনডিসি, এইচডিএমসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, জি এবং জিওসি ০৭ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার বরিশাল এরিয়া মেজর জেনারেল খান ফিরোজ আহমেদ, এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি সহ সেনাবাহিনীর উর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাগণ, স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং স্থানীয় প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে সেনাবাহিনী প্রধান বলেন, শীতবস্ত্র বিতরণ ছাড়াও সেনাবাহিনীর মেডিকেল টিম বিনামূল্যে মানুষের স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দেশমাতৃকার সেবায় সর্বদা নিয়োজিত রয়েছে। যেকোন দুর্যোগ পরিস্থিতি মোকাবেলায় এবং দেশের সকল প্রয়োজনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী সাধারণ মানুষের পাশে থেকে দেশ গঠনে তাদের নিরলস প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবে । তিনি আরও বলেন, ভবিষ্যতেও বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এ ধরণের জনসেবামূলক কর্মকান্ড অব্যাহত রাখবে ।

এর আগে সকালে সেনাবাহিনী প্রধান খুলনার জাহানাবাদ সেনানিবাসে অন্যান্য পদবীর সৈনিকদের পারিবারিক বাসস্থানের জন্য ১১২টি ফ্ল্যাট সম্পন্ন ১৫ তলা ভবন ‘সেনানীড়’এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। ৬৭টি কাঠার উপরে নির্মিত এই ভবনে প্রতিটি ফ্লোরে ০৮টি ইউনিটসহ ৮৩৫ বর্গফুট এর সর্বমোট ১১২টি ফ্ল্যাট রয়েছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ‘‘মুজিব বর্ষ” উদযাপন এবং স্বাধীনতা ও সেনাবাহিনীর সুবর্ণ জয়ন্তীর এই মাহেন্দ্রক্ষণে জাহানাবাদ সেনানিবাসে অন্যান্য পদবীর সৈনিকদের জন্য সেনানীড় বাসস্থান নির্মাণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

আর্মি ওয়েল ফেয়ার ট্রাষ্ট কর্তৃক প্রায় সকল সেনানিবাসে ‘সেনানীড়’ প্রকল্পের কাজ হাতে নেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন সেনানিবাসে সর্বমোট ১৫টি সেনানীড় আবাসন এর নির্মাণ কার্যক্রম শুরু করা হয় যার মধ্যে ০৭টির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে এবং বাকি ০৮টির নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। এই আবাসন গুলোতে বর্তমানে ৯৫৮টি পরিবার বসবাস করে সুফল ভোগ করছেন।

শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে শীতবস্ত্র বিতরণ শেষে সেনাবাহিনী প্রধান হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মভূমি গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় গমন করেন।

সেনাবাহিনী প্রধানের নির্দেশে প্রতিবছরের ন্যায় এবছরও শীত মৌসুমে অসহায় ও দরিদ্র শীর্তাত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণসহ নানাবিধ জনসেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে সেনাবাহিনী। এরই ধারাবাহিকতায় ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের শীতকালীন প্রশিক্ষণ পরিদর্শন শেষে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা কমপ্লেক্স সংলগ্ন মাঠে সেনাবাহিনী প্রধান স্থানীয় হতদরিদ্র ১৫০০ জন মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন।

উল্লেখ্য, সেনাবাহিনী প্রধান ০৪ জানুয়ারি ২০২২ তারিখে ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের শীতকালীন প্রশিক্ষণ পরিদর্শন করেন এবং একই সাথে নড়াইল জেলার লোহাগড়ায় হতদরিদ্র মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন। এছাড়া গতকাল তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সুপারভিশনে মধুমতি নদীর উপর নির্মিতব্য রেল সেতু প্রজেক্ট পরিদর্শন করেন।

 

শেয়ার করুন :