বিমান বাহিনী প্রধান কর্তৃক কঙ্গো ও মালিগামী কন্টিনজেন্ট সদস্যদের ব্রিফিং প্রদান

বিমান বাহিনী প্রধান কর্তৃক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন

কঙ্গো ও মালিগামী কন্টিনজেন্ট সদস্যদের ব্রিফিং প্রদান

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক কঙ্গো এবং মালিতে নিয়োজিত জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে (MONUSCO & MINUSMA) কন্টিনজেন্টের প্রতিস্থাপন করতে যাচ্ছে। বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল শেখ আব্দুল হান্নান, বিবিপি, বিইউপি, এনএসডব্লিউসি, এফএডব্লিউসি, পিএসসি রবিবার জানুৃয়ারি বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ঘাঁটি বাশার-এ কঙ্গো এবং মালিগামী কন্টিনজেন্ট সদস্যদের উদ্দেশ্যে মূল্যবান বক্তব্য প্রদান করেন। খবর আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর)

এ সময় তিনি জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে তাদেরকে শৃঙ্খলা, সততা, পেশাদারিত্ব ও আন্তরিকতার সাথে অর্পিত দায়িত্ব পালন করে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী তথা দেশের জন্য সুনাম বয়ে আনার আহবান জানান। তিনি করোনাভাইরাস এর বিস্তার রোধ এবং এতে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমাতে বিশেষ সতর্কতা অনুসরণের পরামর্শ দেন।

পরিশেষে তিনি মিশনের সাফল্য কামনায় আয়োজিত এক বিশেষ মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বিমান সদরের প্রিন্সপাল স্টাফ অফিসারগণ, ঢাকাস্থ এয়ার অফিসারগণ এবং বিমান সদর ও ঘাঁটির উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এখানে উল্লেখ্য যে, কঙ্গো শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ০২টি কন্টিনজেন্ট (ইউটিলিটি এভিয়েশন ইউনিট ও এয়ার ট্রান্সপোর্ট ইউনিট) এ সর্বমোট ২৪৬ জন বিমান বাহিনীর সদস্যসহ ০৬টি MI-Series রবং হেলিকপ্টার ও ০১টি C-130  পরিবহন বিমান এবং মালি শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ০১টি কন্টিনজেন্ট (এয়ারফিল্ড সার্ভিসেস এন্ড ম্যানেজমেন্ট ইউনিট) এ সর্বমোট ১১০ জন বিমান বাহিনীর সদস্যসহ বিভিন্ন এয়ারফিল্ড এবং গ্রাউন্ড সাপোর্ট ইকুইপমেন্ট রয়েছে।

 

 

শেয়ার করুন :