ইউজিসি আয়োজিত ৪র্থ শিল্পবিপ্লব বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন শুরু ১০ ডিসেম্বর

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন আয়োজিত ‘ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশন অ্যান্ড বিয়ন্ড’ শীর্ষক দু’দিন ব্যাপী এক আন্তর্জাতিক সম্মেলন ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তজার্তিক সম্মেলন কেন্দ্রে আগামী ১০ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখ শুরু হবে। সম্মেলনের সার্বিক প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপন উপলক্ষে ইউজিসি এই সম্মেলনের আয়োজন করছে।

সম্মেলনে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ১০ ডিসেম্বর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে প্রধান অতিথির বক্তব্য  প্রদান এবং সম্মেলনের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করবেন। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এমপি ১১ ডিসেম্বর সমাপনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে  প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদান করবেন। ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ’র সভাপতিত্বে সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এমপি বিশেষ অতিথি এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ মাহবুব হোসেন সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

সম্মেলনে তিনজন নোবেল বিজয়ী (Oliver Hart, Konstantin Novoselov, Takaaki Kajita) এবং বিশ্বের সাতজন বিশ্বখ্যাত বিজ্ঞানীসহ দেশের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, প্রযুক্তিবিদ ও গবেষক অংশগ্রহণ করবেন।

আন্তর্জাতিক সম্মেলনের সার্বিক প্রস্তুতি তুলে ধরার লক্ষ্যে  মঙ্গলবার ৭ ডিসেম্বর  ইউজিসি অডিটরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ, ইউজিসি সদস্য প্রফেসর ড. দিল আফরোজা বেগম, প্রফেসর ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন, প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর, প্রফেসর ড. বিশ্বজিৎ চন্দ, প্রফেসর ড. মো. আবু তাহের, কমিশনের সচিব ও বিভাগীয় প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন।

সম্মেলনে ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, এই সম্মেলনের মাধ্যমে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের শিক্ষাবিদ ও গবেষকদের মাঝে যোগাযোগের একটি নেটওয়ার্ক তৈরি হবে। একই সাথে শিল্প-বাণিজ্য প্রতিষ্ঠান ও উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যেও একটি সহযোগিতার সেতুবন্ধন তৈরি হবে।

তিনি আরও বলেন, এ সম্মেলনে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে এর সম্ভবনাগুলো কাজে লাগাতে দেশের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর করণীয় নির্ধারণ করা হবে। চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের সঙ্গে সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রযুক্তি পরিচালনার জন্য যথাযথ জ্ঞান ও দক্ষতাসম্পন্ন মানবসম্পদের প্রয়োজন হবে। এই দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করতে দেশের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে বলে তিনি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ৪র্থ শিল্পবিপ্লব বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজক কমিটির চেয়ার প্রফেসর সাজ্জাদ হোসেন বলেন, এই সম্মেলনের মাধ্যমে ফোরআইআর প্রযুক্তি- কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, আইওটি, ডেটা অ্যানালিটিক্স, ব্লক চেইন এবং ক্লাউড কম্পিউটিং ইত্যাদি ব্যবহার করে শিল্পক্ষেত্রসহ জাতীয় জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিদ্যমান সমস্যা সমাধানের যথোপযুক্ত উপায় খুঁজে বের করা হবে।

উল্লেখ্য, এ সম্মেলনে মোট ০৬ টি মূল প্রবন্ধ উপস্থাপিত হবে। ২১ টি টেকনিক্যাল সেশনে মোট ১০০ টি গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হবে। সম্মেলনে দেশের শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে যৌথ সহযোগিতামূলক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য শিল্প-বাণিজ্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের সাথে ইউজিসি ও উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে একাধিক ত্রি-পাক্ষিক সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষরিত হবে।

এছাড়া, স্থানীয় উদ্ভাবনগুলো বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিতে “মুজিব শতবর্ষ আইডিয়া প্রতিযোগিতা-২০২১” ও “মুজিব ১০০ শিল্প প্রদর্শনী-২০২১” আয়োজন করা হয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

 

শেয়ার করুন :