আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর কবর জিয়ারত করলেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাভেদ

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর কবর ২ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার জিয়ারত করেছেন তাঁর পুত্র ভূমি মন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাভেদ। এরপর তিনি নিজ নির্বাচনী এলাকা আনোয়ারা ও কর্ণফুলী উপজেলার বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন ও সাধারণ মানুষের সাথে কুশল বিনিময় করেন।  খবর বাসসের ছবি সংগৃহীত

মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী ইমরান হোসেন জানান, ‘মাননীয় ভূমিমন্ত্রী সকাল ১১ টায় আনোয়ারা হাইলধর আসেন। এখানে তিনি এলাকার সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের নিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দুঃসময়ের কান্ডারি আখতারুজ্জামান চৌধুরীর কবর জিয়ারত করেন।’

উল্লেখ্য, ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী মরণোত্তর স্বাধীনতা পদকে ভূষিত আওয়ামী লীগের দক্ষিণ জেলা শাখার দীর্ঘদিনের সভাপতি ও প্রেসিডিয়াম সদস্য আখতারুজ্জামান চৌধুরীর জ্যেষ্ঠ সন্তান।

ইমরান হোসেন জানান, কবর জিয়ারতের পর মন্ত্রী মিয়া হাজী দৌলত শাহ (রঃ)-এর মাজার জিয়ারত করেন। এরপর মন্ত্রী পাশের একটি সাধারণ চায়ের দোকানে এলাকার মানুষের সাথে বসে চা পান করেন। এ সময় এলাকার শতশত মানুষ মন্ত্রীকে কাছে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। কেউ কেউ নিজেদের ও এলাকার সমস্যা মন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেন। মন্ত্রী সবার কথা শোনেন।

পরপর তিনবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও ভূমি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে নিয়োজিত মন্ত্রী মিষ্টভাষী ও সজ্জন ব্যক্তি হিসেবে নির্বাচনী এলাকায় অত্যন্ত জনপ্রিয়। তাঁর মরহুম পিতা আখতারুজ্জামান চৌধুরীও পুরো চট্টগ্রাম জেলায় বেশ জনপ্রিয় ছিলেন। এলাকার গরীব-দুঃখী যেকোনো মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন সারাজীবন। চট্টগ্রামে দানবীর হিসেবে তাঁর ব্যাপক খ্যাতি ছিল। জনপ্রিয় পিতার জনপ্রিয় পুত্র এবং সরকারের দু’বারের মন্ত্রী জাবেদের প্রতি স্বাভাবিকভাবেই এলাকাবাসীর ব্যাপক আগ্রহ রয়েছে। ফলে তাঁর আগমনের সংবাদে মুহূর্তেই হাইলধর লোকে লোকারণ্য হয়ে ওঠে।

ইমরান আরও জানান, মানুষ যে যেভাবে পেরেছেন মন্ত্রীকে তাদের ভালোবাসা প্রকাশ করেছেন। মন্ত্রীও একেবারে কাছে থেকে তাদের সাথে মিশেছেন, সুখ-দুঃখের কথা শুনেছেন।

সেখান থেকে মন্ত্রী চলে যান কর্ণফুলী উপজেলায়। সেখানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সৈয়দ জামাল আহমদের কবর জিয়ারত করেন।

শেয়ার করুন :