আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী’র বাণী

আকাশছোঁয়া ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৩ ডিসেম্বর ‘আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস’ উপলক্ষে নিম্নোক্ত বাণী প্রদান করেছেন। তথ্য অধিদফতরের সৌজন্যে ২ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী’র বাণী তুলে ধরা হলো-

“বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশে এবারও ৩ ডিসেম্বর ‘৩০তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস’ ও ‘২৩তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস ২০২১’ যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। এ উপলক্ষ্যে আমি বাংলাদেশসহ বিশ্বের সকল প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীকে শুভেচ্ছা জানাই।

এবারের প্রতিপাদ্য ‘Leadership and Participation of Persons with disabilities toward and inclusive, accessible and sustainable post COVID-19 world’ অর্থাৎ ‘কোভিডত্তোর বিশ্বের টেকসই উন্নয়ন, প্রতিবন্ধী ব্যক্তির নেতৃত্ব ও অংশগ্রহণ’ অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ হয়েছে বলে আমি মনে করি।

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ১৯ (১) নম্বর অনুচ্ছেদে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিসহ এদেশের সকল নাগরিকের সুযোগের সমতা নিশ্চিত করেছেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নির্বাচনি ইশতেহারেও প্রতিবন্ধী জনগণের জীবনমান উন্নয়নের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করা হয়েছে। বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের মেয়াদে জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন ও নিউরো ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধী সুরক্ষা ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন আইন, বিধি, নীতিমালা, কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে। ঢাকার মিরপুরে ১৫ তলা মাল্টিপারপাস প্রতিবন্ধী কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হয়েছে। অটিজম বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন শিশু ও প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিদের বিনামূল্যে বিভিন্ন সেবা প্রদান এবং সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ঢাকার মিরপুরে অবস্থিত জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন ক্যাম্পাসে অটিজম রিসোর্স সেন্টার চালু করা হয়েছে। সেখানে একটি অবৈতনিক অটিস্টিক বিদ্যালয় স্থাপন করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনস্টিটিউট ফর প্যাডিয়েট্রিক নিউরো-ডিসঅর্ডার এণ্ড অটিজম (ইপনা) প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। আমাদের সরকার প্রতিবন্ধীদের দক্ষ জনশক্তিতে রুপান্তরিত করতে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়সহ মানবসম্পদ উন্নয়নের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও সংস্থার মাধ্যমে নানাবিধ উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। আমরা প্রতিবন্ধীদের নিয়মিত ভাতা দিচ্ছি, তাদের শিক্ষা ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করছি।

দেশের প্রতিবন্ধী জনগণের সর্বিক উন্নয়নে আমি সরকারের পাশাপাশি সমাজের সর্বস্তরের জনগণ, সংশ্লিষ্ট সকল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও দেশি-বিদেশি সংস্থাগুলোকে সমন্বিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানাচ্ছি। আমি আশা করি, সকলের সম্মিলিত কর্মপ্রয়াসে এ দেশকে আমরা জাতির পিতার স্বপ্নের বাংলাদেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা কবর, ইনশাল্লাহ।

আমি ‘৩০তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস’ ও ‘২৩তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস ২০২১’ উপলক্ষ্যে গৃহীত সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করছি।

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু
বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।”

 

শেয়ার করুন :