বঙ্গবন্ধু শোষণমুক্ত বৈষম্যহীন সমাজের স্বপ্ন দেখতেন

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি বলেন, বঙ্গবন্ধু শোষণ-বঞ্ছনামুক্ত বৈষম্যহীন সমাজের স্বপ্ন দেখতেন।

মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির সবচেয়ে বিশ্বস্ত বন্ধু ও পরিক্ষিত নেতা ছিলেন। তিনি আজীবন বাংলার গরীব দুঃখী মানুষের রাজনীতি করেছেন। তাঁর জীবনের দীর্ঘ ও সংগ্রামের ফসল আজকের বাংলাদেশ।

মন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুকে অনুধাবন করতে হলে মনোযোগ দিয়ে তাঁর কথা অনুধাবন করতে হবে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু তাঁর জীবদ্দশায় সকলের প্রতি যে আহ্বান জানিয়ে গেছেন তা স্মরণে রেখে আমাদের কাজে কর্মে প্রতিফলন ঘটালে বঙ্গবন্ধুর প্রতি যথাযথ শ্রদ্ধা জানানো হবে।

১৪ আগস্ট শনিবার প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে ‘বঙ্গবন্ধুর চেতনায় সিভিল সার্ভিস’ শীর্ষক এক ওয়েবিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, এমপি।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন এর সভাপতিত্বে এতে মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মোঃ তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।

ওয়েবিনারে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় বলেন, বঙ্গবন্ধু সারাজীবন মানুষের মুক্তির লক্ষ্যে লড়াই করে গেছেন। তাঁর দু’টি লক্ষ্য ছিল: এদেশের মানুষকে স্বাধীনতা এনে দেয়া এবং দেশকে বিশ্বের বুকে সম্মানের স্থানে প্রতিষ্ঠিত করা। প্রতিমন্ত্রী এ সময় বাংলাদেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ রাষ্ট্রে পরিণত করার লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে কাজ করতে সরকারি কর্মচারীদের প্রতি আহ্বান জানান।

সভায় মুখ্য আলোচক মোঃ তোফাজ্জল হেসেন বলেন, বঙ্গবন্ধু সেক্যুলার বাঙালি জাতীয়তাবাদের প্রবক্তা ছিলেন। তিনি ধারাবাহিক নেতৃত্বের মাধ্যমে পরাধীনতার শৃংখল থেকে দেশ এবং মানুষের জন্য স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। তাঁর দেশ প্রেম ও নেতৃত্ব অতুলনীয়। তিনি বলেন, সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর প্রশাসনের মতো এত দক্ষ প্রশাসন আর কোথাও ছিলনা।

শেয়ার করুন :