টিকা ছাড়া বের হলে শাস্তি, এমন সিদ্ধান্ত হয়নি: তথ্যমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: টিকা না নিয়ে ১৮ বছরের বেশি বয়স্ক কেউ রাস্তায় বের হলে শাস্তি পেতে হবে, এমন কোনো সিদ্ধান্ত সরকার নেয়নি বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

বুধবার (০৪ আগস্ট) সচিবালয়ে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় টিকা ছাড়া বের হলে শাস্তির মুখোমুখি হওয়ার কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছিলেন, করোনার টিকা না নিয়ে বাইরে ঘোরাফেরা করলে আগামী ১১ আগস্ট থেকে শাস্তির আওতায় আনা হবে ১৮ বছরের বেশি বয়স্কদের। রাস্তাঘাটে, গাড়ি-ঘোড়ায়, ট্রেনে হোক, কেউ আইন না মানলে সরকার হয়তো অধ্যাদেশ জারি করে শাস্তি দিতে পারে।

তবে মঙ্গলবার রাতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এরকম কোনো কিছু বলা হয়নি।

এ বিষয়ে মতামত জানতে চাইলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, গতকাল যে বৈঠক হয়েছে মূলত অনলাইনে হয়েছে, বেশিরভাগই অনলাইনে সভায় যোগ দিয়েছেন। কেউ কেউ সশরীরে উপস্থিত ছিলেন। আমি অনলাইনে যুক্ত ছিলাম। সেখানে আসলে এ ধরনের কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। ১৮ বছরের বেশি বয়স্ক কেউ (টিকা না নিয়ে) বের হলেই শাস্তিযোগ্য অপরাধ হবে, এমন কোনো সিদ্ধান্ত সরকার নেয়নি।

তিনি বলেন, বরং মাস্ক পরার ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। একই সাথে স্বাস্থ্যবিধি যাতে সবাই মানে, সেটির ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। মাস্ক না পরলে যাতে তাৎক্ষণিক শাস্তি দেওয়া যায় সেজন্য পুলিশ যাতে জরিমানা করতে পারে, আইনের মধ্যে থেকে কীভাবে সেটা করা যায়, সে বিষয়ে সবাই অভিমত ব্যক্ত করেছেন।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর বক্তব্য তার ব্যক্তিগত অভিমত নাকি সমন্বয়হীনতার অভাব—জানতে চাইলে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, এ ধরনের কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এটি কারো ব্যক্তিগত অভিমত হতে পারে। তবে সভায় এ ধরনের সরকারি কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

শেয়ার করুন :