সাতদিনের জন্য চলবে গণপরিবহন

নিউজ ডেস্ক: আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে সাতদিনের জন্য গণপরিবহন পরিচালনার অনুমতি দিয়েছে সরকার। গণপরিবহনের সঙ্গে চলবে ট্রেনও। বাংলাদেশ রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, আগামী বৃহস্পতিবার থেকে কঠোর বিধিনিষেধ উঠে গেলে আন্তনগর ও মেইল মিলিয়ে ৫৭ জোড়া ট্রেন চলাচল শুরু হবে।

এ বিষয়ে আজ মঙ্গলবার আদেশ জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। রেলওয়ের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আজ বিকেল পাঁচটা থেকে অনলাইনে টিকিট বিক্রি শুরু হবে। আর ১৫ জুলাই থেকে থেকে ৩৮ জোড়া আন্তনগর ও ১৯ জোড়া মেইল যাত্রা শুরু হবে।

১৫ জুলাই থেকে ২৩ জুলাই রাত ১২টা পর্যন্ত দেশে বিধিনিষেধ উঠে গেলেও ভোর ছয়টা থেকে ৫ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত ফের এ পরিস্থিতি জারি হবে। চলমান বিধিনিষেধের মতোই সরকারি-বেসরকারি অফিস, গণপরিবহনসহ সব যানবাহন বন্ধ এবং শপিং মল ও দোকানপাট বন্ধ থাকবে। একই সঙ্গে সব ধরনের শিল্পকারখানাও বন্ধ থাকবে।

এদিকে, সরকার গণপরিবহন পরিচালনার অনুমতি দেওয়ায় পরিবহনগুলোর মালিক ও শ্রমিকদের প্রতি সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ। পাশাপাশি তিনি এও বলেছেন, যেসব গণপরিবহন যাত্রী পারাপারে সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন করবে না তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, আমরা সব মালিক ও শ্রমিকদের কাছে আহ্বান জানিয়েছি তারা যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব ধরনের পরিবহন পরিচালনা করেন। যারা সরকারের এই নিয়ম প্রতিপালন করবে না তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমরা পুলিশ প্রশাসনকে অনুরোধ জানাচ্ছি।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব আরও বলেন, অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে আগের মতো ৬০ শতাংশ বর্ধিত ভাড়ায় যাত্রী পারাপার হবে। যাত্রীকে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করতে হবে। এগুলো আমাদের মালিক, পুলিশ, শ্রমিক, চালক ও হেল্পাররা দেখবে।

শেয়ার করুন :