ঈদে বিন্জ নিয়ে এলো ‘বরফকলের গল্প’

বিনোদন ডেস্ক: প্রতিটি ভোরে লাশের খবর! কিন্তু কে করছে? পুলিশের খাওয়া-ঘুম হারাম তদন্তের বেড়াজালে। মুখে সবার কুলুপ, কিন্তু নাকে আসছে বরফকল থেকে আসা রক্তের গন্ধ। একের পর এক হত্যা, তারপর খাঁটি দুধ দিয়ে গোসল পবিত্র হওয়ার আশায়। এ এক ভয়ংকর সিরিয়াল কিলারের গল্প। যার অবশ্য বাস্তবে কোন ভিত্তি নেই। কাল্পনিক চরিত্র অবলম্বনে এবারের ঈদে রবির জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম বিন্জ নিয়ে এসেছে ৬ পর্বের অরিজিনাল ওয়েব সিরিজ ‘বরফকলের গল্প’।

 

আনিসুর রহমান মিলন (অভিনেতা)
প্রস্তুতি ছিল এক বছর ধরে। কথা হচ্ছিল বিন্জের সঙ্গে, যখন ফাইনাল হলো, ঠিক তখন থেকেই নিজেকে তৈরি করা শুরু করেছি চরিত্রের ধরন অনুযায়ী। ওজন কমানো, মাথার চুল একদম ছোট করে ছাঁটা, মুখে একটা রুক্ষতার ছাপ, নৃশংসতা রাখতে হয়েছে চোখের কোণে। জার্নিটা খুব বেশি সহজ ছিল না, বললেন আনিসুর রহমান মিলন। এ চরিত্র নিয়ে দর্শকের গ্রহণযোগ্যতা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, একজন শিল্পীর ভালো কাজের বৈশিষ্ট্য হলো চরিত্রের মধ্যে ঢুকে যাওয়া। আমি সেই চেষ্টাটাই করেছি। বরফকলের গল্পের প্রধান চরিত্র নওশাদকে মানুষ ঘৃণা করবে এটাই স্বাভাবিক, আমার চাওয়াও ঠিক তাই। বরফকলের গল্পের পোস্টারটি যখন পাবলিশ হয়, তখন থেকেই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। দেশ এবং বিদেশের মানুষ অপেক্ষা করে ছিল ‘বরফকলের গল্প’ অনএয়ারে কবে আসবে। বিন্জের কাছে আমি কৃতজ্ঞ দর্শককে ধরে রাখার একটি নির্ভরযোগ্য প্ল্যাটফর্ম উপহার দিতে পেরেছে। দারুণ একটা গল্পকে নতুন করে সাজিয়ে দর্শককে উপহার দেওয়ার এটাই সুবর্ণ সুযোগ বলে আমার মনে হয়।

 

নওশাবা (অভিনেত্রী)
‘বরফকলের গল্প’ নিয়ে বলতে গেলে শুরুতেই বলবো আমার একটি আফসোসের জায়গা রয়েছে তা হলো আমি হাতে একদমই সময় পাইনি। আমাকে জানানো হয়েছিল শুটিংয়ের ঠিক আগের দিন। ঠিক ঝড়ের মতো এসেছিল কাজটি আমার কাছে কিন্তু ঠান্ডা বৃষ্টির মতো শুটিংটা শেষ হয়েছে বললেন নওশাবা। তিনি আরও বলেন, ‘আমার কো-আর্টিস্ট সাচ্চু ভাই অসম্ভব সহযোগিতা করেছেন। আমি এখানে সাংবাদিকের চরিত্রে অভিনয় করেছি। বাংলাদেশে এই প্রথম একদমই ভিন্নধর্মী বাস্তব গল্প নিয়ে তৈরি ওয়েব সিরিজ, যা দর্শককে বিনোদনের অন্য রকম জায়গা তৈরি করবে।’ এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ, একদমই তাই। কারণ, প্রেম-রোমান্সের বাইরের একটা গল্প, যা আমার মনে হয় খরার পরে বৃষ্টি। দর্শককে দেশে আটকে রাখার জন্য বরফকলের গল্পের মতো নতুন নতুন গল্পের সিনেমা বলুন, ওয়েব সিরিজ বলুন ভীষণ দরকার। যে কথা না বললেই নয়, লকডাউনে সারা দিন ঘরে থাকতে থাকতে মানুষ যখন হাঁপিয়ে ওঠার উপক্রম, তখন বিন্জ একটি আশার আলো দেখাতে পেরেছে। সে জন্য অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার।

 

সহিদ উন নবী (নির্মাতা ও অভিনেতা)
মনোটোনাস টাইপ কাজ দেখতে দেখতে আমরা ভীষণ ক্লান্ত। এই সময় দর্শক চায় নতুন নতুন শৈল্পিকতা। আমাদের দেশের নানা প্রান্তরে এমন এমন চরিত্র লুকিয়ে আছে, যা আমাদের বিস্মিত করবে, ভাবাবে সেখানে থেকেই যদি কিছু তুলে আনা যায় তাহলে এককথায় তা অসাধারণ হয়ে উঠবে। আমরা এবার সেই চেষ্টাটিই করেছি। নৃশংসতার কাহিনি নিয়ে নির্মিত এই সিরিজ। বরফকলকে ঘিরেই নৃশংস জীবনের বাঁকবদল। তাই নাম রাখা হয়েছে ‘বরফকলের গল্প’, বললেন নির্মাতা সহিদ উন নবী।
যিনি নিয়ন্ত্রণ করতেন আন্ডারওয়ার্ল্ড। হাতের মুঠোয় জনপ্রতিনিধি, প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তবে গ্রেপ্তারের পর বেরিয়ে আসে তার নৃশংসতার অজানা সব কাহিনি। সিরিজটির বেশির ভাগ শুটিং করা হয়েছে ঢাকাসহ প্রায় ৩০ জায়গায়। সহিদ উন নবী আরও বলেন, ‘বরফকলের গল্প’-এ যারা অভিনয় করেছেন, সবাই যার যার জায়গা থেকে শতভাগ অ্যাফোর্ট দিয়েছেন। যার কথা না বললেই নয়, মিলন ভাই, যিনি তার অভিনয়ের ক্যারিশমায় আপাদমস্তক চরিত্রকে ধারণ করেছেন। বিন্জ নিয়ে তিনি বলেন, বিন্জ বাংলাদেশে বিনোদনের নতুন মাত্রা সংযোজন করেছে।

 

রিজওয়ানা রশিদ অনি (জেনারেল ম্যানেজার, রবি)
বর্তমানে প্রতিটি মানুষই ইন্টারনেটনির্ভর। তবে নতুন বিনোদনের জায়গা দখলের বিষয়টি যদি বলতে হয়, তবে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম সবার ওপরেই, বললেন রবির জেনারেল ম্যানেজার অনি। রবির ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ‘বিন্জ’ যার টার্নিং পয়েন্ট ছিল ‘আগস্ট ১৪’ এটা বিশেষ সম্মাননা পুরস্কারও পেয়েছে। তবে ‘বরফকলের গল্প’ নিয়ে আমরা ভীষণ আশাবাদী। কারণ, দেশের মানুষের চাহিদা জরিপ করেই এ গল্পের নির্মাণ। লকডাউনে মানুষ ঘরে বসে যখন নতুন বিনোদন খুঁজছে, সে সময় আলাদা কনটেন্ট হিসেবে আমরা এটা উপহার দিতে পারব। বিন্জের ফিউচার নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা চাই মানুষ অবসরে যেন বিন্জ লগইন করে। শত কাজে ডুবে থাকা মানুষগুলো যেন বিনোদনের প্রত্যাশায় বিন্জ দেখে, এটাই হবে আমাদের বড় প্রাপ্তি। বিন্জ দেখার প্রসেস নিয়ে তিনি বলেন, বিন্জ অ্যাপ নামিয়ে দেখা যাবে। স্মার্ট টিভিতে সহজেই দেখতে পারবে। যাদের স্মার্ট টিভি নেই, তারা এইচটিএমআই পোর্টের মাধ্যমে আর রবির বিন্জ ডিভাইস আছে সেটার মাধ্যমে লগইন করে দেখা যাবে। তবে বিন্জ শুধু রবির কাস্টমাররাই দেখতে পারবে তা নয়। সবাই সাবস্ক্রাইব করতে পারবে।

শেয়ার করুন :