করোনা: আইসিইউতে কাজী হায়াৎ

নিউজ ডেস্ক: প্রখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা ও অভিনেতা কাজী হায়াতের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। রোববার (২১ মার্চ) বিকেলে তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়েছে।

করোনা থেকে তার ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জানিয়েছেন কাজী হায়াতের ছেলে চিত্রনায়ক কাজী মারুফ।

তিনি বলেন, ‘আব্বার শরীরের অবস্থা খুব একটা ভালো না। আইসিইউতে নেওয়া হয়েছে। তার ফুসফুস ৪০ শতাংশেরও বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে গতকালের চেয়ে আজ কিছুটা উন্নতি হয়েছে। আগে ২০ লিটার অক্সিজেন প্রয়োজন হতো, এখন ১০ লিটার লাগছে। চিকিৎসক বলছেন তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন-এই অবস্থায় দুইদিন অতিবাহিত হলেই আর ঝুঁকি থাকবে না। আব্বার জ্ঞান আছে এবং তিনি কথাও বলতে পারছেন। দেশবাসীর কাছে আব্বার সুস্থতার জন্য দোয়া চাইছি। ’

কাজী মারুফ কথা বলেন, ‘আমেরিকায় আমার সব কাজ ছেড়ে দেশে ছুটে এসেছি শুধুমাত্র বাবা-মার জন্য। তারাই আমার সব। আজ পর্যন্ত আমার যতটুকু অর্জন, সব তাদেরই জন্য। এখন বাবার জন্য নিজের হাতে স্যুপ বানাচ্ছি। হাসপাতালে নিয়ে খাওয়াবো। যথাযথ নিয়ম মেনে আইসিইউ’র ভেতর গিয়ে ওনার সঙ্গে কথা বলেছি। আব্বাকে না দেখে এক মুহূর্তও থাকতে পারছি না। ’

এই অভিনেতা জানান, তার মা রোমিসা হায়াতও করোনা আক্রান্ত ছিলেন। কিন্তু তিনি এখন সুস্থ। হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরার ছাড়পত্র পেয়েছেন।

গত ১০ মার্চ কাজী হায়াত স্ত্রীসহ করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি জানান। এরপর ১৫ মার্চ তারা রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানেই তাদের চিকিৎসা চলছে।

এদিকে বাবা-মা করোনা আক্রান্ত শুনে যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ছুটে এসেছেন কাজী মারুফ। এসেই তিনি হাসপাতালে যান এবং সার্বক্ষণিক তাদের দেখভাল করছেন।

শেয়ার করুন :