ভাইরাল: ট্রাম্পের মতো হাঙর

নিউজ ডেস্ক: সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেহারার সঙ্গে মিল রয়েছে একটি হাঙরের। এ নিয়ে শোরগোল পড়ে গেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম দ্য ইউএস সানের প্রতিবেদনে বলা হয়, হাঙরের ছবিটি ভুয়া নয়। এটি তুলেছেন ট্যানার মান্সেল নামের ২৭ বছরের এক ফটোগ্রাফার। সমুদ্রের নিচের জীববৈচিত্র ক্যামেরাবন্দি করাই নেশা ও পেশা ফ্লোরিডার ওই চিত্রগ্রাহকের।

জানা গেছে, গত ডিসেম্বর মাসের ১৯ তারিখ ফ্লোরিডা উপকূলে সমুদ্রের নিচে ছবি তুলছিলেন ট্যানার। তখনই প্রাগৈতিহাসিক ‘মেগালোডন’ শার্কের মতো দেখতে হাঙরটি তার নজরে আসে। প্রায় ৯ ফুট লম্বা প্রাণীটি শিকারে মশগুল ছিল। সেই মুহূর্ত নিজের ক্যামেরায় বন্দি করেন ট্যানার। তারপর খেয়ালবশে ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। এখনও পর্যন্ত প্রায় ৫০ হাজার লাইক পেয়েছে ছবিটি। হাঙরটির সঙ্গে ট্রাম্পের তুলনা করে হাসিতে ফেটে পড়েন নেটিজেনদের অনেকেই। বয়ে যায় কমেন্টের বন্যা।

এদিকে, সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নাকি মোটেই হাঙর পছন্দ করেন না। এমনটাই দাবি করেছিলেন পর্নস্টার স্টেফানি ক্লিফোর্ড ওরফে স্টর্মি ড্যানিয়েলস। ট্রাম্পের সঙ্গে যৌনসম্পর্ক রয়েছে এমনটা দাবি করে রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছিলেন তিনি। এক সাক্ষাৎকারে ড্যানিয়েলস জানিয়েছিলেন, কয়েক বছর আগে তিনি ও ট্রাম্প ডিসকভারি চ্যানেলে ‘শার্ক উইক’ দেখার পর ট্রাম্প বলেন, “আমি সব ধরনের দাতব্য প্রতিষ্ঠানে দান করেছি, কিন্তু হাঙরকে সহায়তা করে এমন কোনও দাতব্য প্রতিষ্ঠানে আমি কখনওই দান করিনি। আমি চাই সব হাঙর মরে যাক। ’

শেয়ার করুন :