অস্ট্রেলিয়ায় জাতীয় সঙ্গীতের পরিবর্তন হলো যে কারণে

নিউজ ডেস্ক: দেশের আদিবাসীদের প্রতি সম্মান ও মানুষের সঙ্গে একতা বাড়াতে নিজেদের জাতীয় সঙ্গীতে পরিবর্তন এনেছে অস্ট্রেলিয়া। জাতীয় সঙ্গীতে থাকা একটি শব্দ পরিবর্তন করে এমন নজির স্থাপন করেছে দেশটি।

শুক্রবার (১ জানুয়ারি) থেকে দেশটির জাতীয় সঙ্গীতে এই পরিবর্তন কার্যকর করা হয়। দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন নতুন বছরের প্রাক্কালে এ ঘোষণা দেন।

ঘোষণা অনুযায়ী, অ্যাডভান্স অস্ট্রেলিয়া ফেয়ার’ শিরোনামের জাতীয় সঙ্গীতের একটি অংশ ‘ফর উই আর ইয়ং অ্যান্ড ফ্রি’ এর বদলে ‘ফর উই আর ওয়ান অ্যান্ড ফ্রি’ করা হয়েছে। অর্থাৎ ‘আমরা যুব ও স্বাধীনের জন্য’ অংশটির পরিবর্তিত অর্থ অনেকটা এমন ‘আমরা এক ও স্বাধীনের জন্য’।

এ বিষয়ে স্কট মরিসন বলেন, আমাদের মধ্যেকার এই আন্তরিক একতা জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলার এটাই উপযুক্ত সময়। অস্ট্রেলিয়া পৃথিবীর বুকে বিভিন্ন সংস্কৃতির মানুষদের জন্য সফল একটি দেশ ছিল।

মরিসন আরও বলেন, আধুনিক রাষ্ট্র হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার বয়স খুব কম হতে পারে। কিন্তু পৃথিবীতে প্রথম দিকে যেসব রাষ্ট্র ছিল, যাদের নেতৃত্বকে আমরা সম্মান জানাই তাদের মতোই আমাদের দেশের ইতিহাস অনেক পুরনো। একতার অনুপ্রেরণায় এটাই যথার্থ যে আমরা আমাদের জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে এই সত্যের প্রতিফলন ঘটাই এবং এটাকে সাধুবাদ জানাই।

এর আগে দেশটির আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্রী কেন ওয়াটের কাছে জাতীয় সঙ্গীতে পরিবর্তনের বিষয়টি জানানো হলে তিনি এতে সম্মতি দেন। ওয়াট দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের নিম্নকক্ষে নির্বাচিত কোনো প্রথম আদিবাসী। জাতীয় সঙ্গীতে এই শব্দের পরিবর্তনের বিষয়টিকে ওয়াট ‘আপাতভাবে সাধারণ তবে লক্ষ্য অর্জনে গুরুত্বপূর্ণ’ বলে আখ্যায়িত করেন।

গেলো নভেম্বর মাসে দেশটির একটি রাগবি দল প্রথমবারের মতো আদিবাসীদের প্রতি সম্মান জানিয়ে জাতীয় সঙ্গীতে পরিবর্তন এনে গানটি গেয়েছিল।

১৮৭৮ সালে সর্বপ্রথম পিটার ডটস ম্যাককর্মিক ‘অ্যাডভান্স অস্ট্রেলিয়া ফেয়ার’ শিরোনামে গানটি রচনা করেন। পরবর্তীসময় ১৯৮৪ সালে এই গানটিকেই দেশটির জাতীয় সঙ্গীত হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

শেয়ার করুন :