করোনা মহামারীকালীন শীতের সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানো দরকার

এস এম হৃদয় রহমান :  শীত যেভাবে বাড়ছে এবং করোনা যেভাবে প্রকোপ আকার ধারণ করেছে তাতে মানুষের চিন্তার মাত্রাও বৃদ্ধি পেয়েছে। বাংলাদেশের অনেক মানুষ এখনও দরিদ্র সীমার নিচে অবস্থান করছে। অনেকে ফুটপাতেও থাকে। উঁচু দালানে বসবাস করা মানুষের জন্য শীত খুব বড় বিষয় না হলেও, করোনা তাদের জন্যও হুমকির।

করোনা প্রতিরোধ ব্যবস্থার দিক দিয়ে মহান সৃষ্টিকর্তা ছাড়া এই মহামারী থেকে পৃথিবীর মানুষকে কেউ রক্ষা করতে পারবে না। আমাদের সবাইকে উচিত বেশি বেশি যার যার অবস্থান থেকে সৃষ্টিকর্তার সৃষ্টি মানুষকে ভালবাসা এবং তাদের পাশে দাঁড়ানো। এতে করে মহান সৃষ্টিকর্তা আমাদের উপর খুশি হবেন এবং আমরা মহামারী প্রতিরোধে অগ্রগামী হব। শীতের প্রতিরোধে দরিদ্র জনগোষ্ঠী মোটেও প্রস্তুত নয়।

বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল বিশেষ করে সবচেয়ে আতঙ্কগ্রস্ত এই মহামারীকালীন শীতে। এছাড়াও দেশের অন্যান্য অঞ্চলের মানুষগুলোও এই শীতে খুব আতঙ্কগ্রস্ত। করোনার সময় না হলে এত আতঙ্ক থাকত না বলেও ধারনা করা যায়। বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের মানুষের জন্য একটা বড় দুর্যোগের সময়। ধনীরা যদি দরিদ্রদের পাশে দাঁড়ায় তাহলে দেশের মানুষের কোন বড় সমস্যাই সমস্যা নয়। বাংলাদেশের মানুষ একসময় স্বাধীন ভূখন্ড অর্জন করেছে ঐক্যবদ্ধভাবে। শীতের সময়ে এবারের এই মহামারীর সময়টিও ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ করবে নিজেদের সহমর্মিতার মধ্য দিয়ে। আসুন সবাই সৃষ্টিকর্তার সৃষ্টির সবকিছুকে ভালবাসি। খারাপ থেকে দূরে থাকি এবং ভাল সবকিছুকে গ্রহণ করি।

 

লেখকঃ ফ্রিল্যান্স সংবাদকর্মী।

 

শেয়ার করুন :